কাতারভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার সাংবাদিক মাহমুদ হুসেইনকে মিসরের কারাগার থেকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। চার বছরের বেশি সময় কারারুদ্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে মুক্তি দেয়া হয় বলে মিসর ও কাতারের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থার সূত্রে জানা গেছে।

হুসেইনের পরিবার, আলজাজিরা বা মিসরীয় কর্তৃপক্ষের এই বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

পরিবারের সাথে সাক্ষাত করতে ২০১৬ সালে কাতার থেকে মিসরে আসার পর মাহমুদ হুসেইনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

কায়রো হুসেইনের বিরুদ্ধে ‘নিষিদ্ধ সংগঠনের সদস্য হওয়া’ ও ‘মিথ্যা সংবাদ প্রচার করে দেশকে অস্থিতিশীল করার’ অভিযোগ আনে।

সাংবাদিক জামাল রাফাত, সারাহ রাফাত, হোসাম আল-শুরবাগি ও মানবাধিকার কর্মী গামাল ইদ ভিন্ন ভিন্ন টুইট বার্তায় হুসাইনের মুক্তির কথা জানান।

কাতারের সংবাদপত্র কাতার আল-ইয়াউম টুইট বার্তায় বলে, ‘চার বছরের বেশি সময় বন্দী থাকার পর মিসরীয় কর্তৃপক্ষ আলজাজিরার সাংবাদিক মাহমুদ হুসেইনকে মুক্তি দিয়েছে।’

ইজিপশিয়ান অবজারভেটরি ফর জার্নালিজম অ্যান্ড দ্যা মিডিয়া এক ফেসবুক বিবৃতিতে জানায়, সোমবার কায়রো ক্রিমিনাল কোর্ট তদন্তের ভিত্তিতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থার সাথে হুসেইনকে মুক্তি দেয়ার আদেশ দেন।

মিসরীয় বিরোধীদলীয় সংবাদ ওয়েবসাইট, দারব পার্টিও হুসেইনের মুক্তির খবর নিশ্চিত করেছে।

মিসরে ২০১৩ সালে প্রথম গণতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থানের পর দেশটিতে আনুষ্ঠানিকভাবে আলজাজিরা বন্ধ করে দেয়া হয়।

কাতারের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের নেতৃত্বে মিত্রদেশগুলোর সাড়ে তিন বছরের অবরোধ প্রত্যাহারের প্রায় এক মাস পরেই দীর্ঘদিন কারারুদ্ধ আলজাজিরার এই সাংবাদিককে মুক্তি দেয়া হলো।

By BD News